শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩, ১০:২৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
পাইন্দংয়ে হযরত সৈয়দ রহমত উল্লাহ শাহ্ রহঃ এর মহান ১৮ মাঘ ওরশ মোবারক উদযাপিত হবে। শাহসুফি সৈয়দ মোহাম্মদ শাহজাহান চৌধুরীর নামাজে জানাযা নগরীর জমিয়াতুল ফালাহ জামে মসজিদে অনুষ্ঠিত বিশ্ব মানবতার মুক্তির জন্য গাউসুল আযম মাইজভাণ্ডারীর দিক-নির্দেশনা বিশ্বব্যাপী পৌঁছাবার তাওফিক কামনা-গাউসুল আযম মাইজভাণ্ডারীর ১১৭তম উরস শরিফের আখেরী মুনাজাতে সৈয়দ মোহাম্মদ হাসান মাইজভাণ্ডারী লাখো আশেক-ভক্তের উপস্থিতিতে গাউসুল আযম মাইজভান্ডারীর ১১৭তম উরস শরিফ পালন হুজুর গাউসুল আজম মাইজভান্ডারীর ওরশ শরীফ উপলক্ষে হারুয়ালছড়ির পাটিয়ালছড়ি জামে মসজিদে আলোচনা ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত। সম্প্রীতি ও ঐক্যের ডাকে একই মঞ্চে বিভিন্ন ধর্মের নেতারা, দশম আন্তঃধর্মীয় সম্প্রীতি সম্মিলনে বক্তারা সংঘাতমুক্ত সমাজ বিনির্মাণে সকল ধর্মের মানুষের ঐক্য প্রয়োজন জ্যোতি ফোরামের উদ্যোগে দেড় শতাধিক মেধাবী শিক্ষার্থীর মাঝে শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ কর্মসূচি রাউজানে মোহাম্মদপুর দায়রা প্রাঙ্গণে জিকরে গাউসুলআজম মাহফিল অনুষ্ঠিত, আজ ২০ জানুয়ারী জ্যোতি ফোরামের উদ্যোগে মেধাবীদের মধ্যে শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে। ফটিকছড়িতে ইউপি চেয়ারম্যান সমিতির সভা সম্পন্ন
নোটিশ :

শোকর এ মওলা মনজিলে ঈদে মিলাদুন্নবী(দ) ও ফাতেহায়ে ইয়াজদাহুম উদযাপন,

চ্যানেল মানবাধিকার 24প্রতিবেদন:-
গত ০২-১২-২০২২ ইংরেজী, শুক্রবার আশেকানে হক ভান্ডারী শোকর এ মওলা মনজিলের উদ্যোগে পবিত্র ঈদ এ মিলাদুন্নবী (দঃ) ও ফাতেহায়ে ইয়াজদাহুম উদযাপন উপলক্ষে মাইজভান্ডারী দর্শন শীর্ষক আলোচনা, মিলাদ ও মাসিক সভা অত্র সংগঠনের কার্যালয় শোকর এ মওলা মনজিলে অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত মহতি আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ও আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট মাইজভান্ডারি গবেষক ও লেখক, রিসালাতুন নাজাত গ্রন্থের রচয়িতা, মাইজভান্ডারী গাউছিয়া হক কমিটি বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় পর্ষদ এর সম্মানিত সিনিয়র সদস্য জনাব মোঃ শাহেদ আলী চৌধুরী মাইজভান্ডারী। সভার সভাপতিত্ব করেন আশেকানে হক ভান্ডারী শোকর এ মওলা মনজিলের সভাপতি সৈয়দ শফিউল আজিম সুমন। প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে বলেন – সমগ্র আরব জাহান যখন পৌত্তলিকতা ও অনাচারের অন্ধকারে নিমজ্জিত ছিল, সেই আইয়ামে জাহেলিয়ার যুগে আল্লাহ সত্য, ন্যায়, কল্যাণ ও একত্ববাদ প্রতিষ্ঠায় তাঁর প্রিয় হাবিবকে অপার রহমত হিসেবে পৃথিবীতে পাঠিয়েছিলেন। এ কারণে রাসূল (সাঃ) – কে সম্মান জানিয়ে রহমাতুল্লিল আলামীন হিসেবে সম্বোধন করেছেন মহান আল্লাহ। বিনয়, সহিষ্ণুতা, দয়া, সহমর্মিতাসহ সব মানবিক সদগুণের সর্বোচ্চ বিকাশ ঘটেছিল তাঁর মধ্যে। শ্রেষ্ঠ মানবিক গুনাবলীর অধিকারী হিসেবে তিনি ধর্ম-বর্ণ-সম্প্রদায় নির্বিশেষে সর্বকালে সর্বজনস্বীকৃত।
রাসূলে পাক (সঃ) এর মানবিক এই গুনাবলীর সর্বোত্তম প্রকাশ-বিকাশ হচ্ছে মাইজভান্ডার দরবার শরীফ। হুজুর গাউসুল আজম মাইজভান্ডারী (কঃ) বাংলার জমিনে মাইজভান্ডারী ত্বরিকা প্রবর্তন করে রাসূল (দঃ) এর আদর্শ ও সিফত অনুসারে সর্বজাতি, সব শ্রেণীর মানুষের কল্যাণে কাজ করার সুযোগ করে দিয়েছেন। সে ধারাবাহিকতায় বর্তমানে মওলা হুজুর মাইজভান্ডারী (মঃজিঃআঃ) যুগোপযোগী মানবকল্যাণমূলক কাজ করে যাচ্ছেন ও আমাদের সবাইকে সেভাবে উৎসাহ দিচ্ছেন। উক্ত সভায় আশেকানে হক ভান্ডারী, শোকর এ মওলা মনজিল ও জ্যোতি ফোরামের কর্মকর্তা ও সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেসবুকে আমরা

ফেসবুকে আমরা