মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০২৪, ০৮:০১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
সূর্যগিরি আশ্রমের উদ্যোগে বৃক্ষরোপন ও বিতরণ যুগ যুগ ধরে বিশ্বশান্তি প্রতিষ্ঠায় আহলে বায়তে রাসুল(দঃ) এর কোরবানী চিরস্মরণীয় মুজিব শতবর্ষ স্বপ্নযাত্রা প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের মাঝে ইউনিফর্ম বিতরণ, ইমাম হোসাইন (রাঃ)’র শাহাদাতের মাধ্যমে হক ও বাতিল এবং মুনাফিক এর পরিচয় পাওয়া যায় মাইজভান্ডার দরবার শরীফে ১১ মহরম ১৮ জুলাই শোহাদায়ে কারবালা মাহফিলের প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত. বাগীশিক চট্টগ্রাম উত্তর জেলা সংসদের পুরস্কার ও সনদ প্রদান অনুষ্ঠান আগামী ২৬ জুলাই সূর্যগিরি আশ্রমের উদ্যোগে কৃতি শিক্ষার্থীদের সম্মাননা ও সনদ বিতরণ প্রিয় নবি (সাঃ) উম্মতের জন্য কারবালার ময়দানে আহলে বাইতের কুরবানী সর্বোচ্চ ত্যাগ এর শিক্ষা দেয়” লায়ন্স ক্লাব অব চিটাগাং ফটিকছড়ির উদ্যোগে সূর্যগিরি আশ্রমে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ মাইজভাণ্ডারী গাউসিয়া হক কমিটি বাংলাদেশ এর সাংগঠনিক সংলাপ ২০২৪ শুরুঃ
নোটিশ :

মাইজভাণ্ডারী একাডেমির সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠানে বক্তারা- শিশু-কিশোরদের মনোজাগতিক উৎকর্ষ সাধনে বুদ্ধিবৃত্তিক পদক্ষেপ নিতে হবে

ত্বরিকায়ে মাইজভাণ্ডারীয়ার প্রবর্তক গাউসুল আযম হযরত মাওলানা শাহ্ সুফি সৈয়দ আহমদ উল্লাহ্ মাইজভাণ্ডারী (ক.)’র ১১৮তম বার্ষিক ওরশ শরিফ উপলক্ষে শাহানশাহ্ হযরত সৈয়দ জিয়াউল হক মাইজভাণ্ডারী (ক.) ট্রাস্টের উদ্যোগে ১০ দিন ব্যাপী কর্মসূচির অংশ হিসাবে মাইজভাণ্ডারী একাডেমির ব্যবস্থাপনায় আগামী ১৬ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠেয় ষোড়শ শিশু-কিশোর সমাবেশ সামনে রেখে সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা আজ ৯ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার দিনব্যাপী নগরীর নাসিরাবাদ সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়। শাহানশাহ্ হযরত সৈয়দ জিয়াউল হক মাইজভাণ্ডারী (ক.) ট্রাস্টের সচিব অধ্যাপক এ ওয়াই এমডি জাফরের সভাপত্বিতে সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা উদ্বোধন করেন সাউদার্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর এম মহি উদ্দিন চৌধুরী। ক্বিরাত, হামদ্-না’ত, মাইজভাণ্ডারী সংগীত, নজরুল সংগীত, রবীন্দ্র সংগীত, কবিতা আবৃত্তি, দেশাত্মবোধক গান, উপস্থিত বক্তৃতা, রচনা, চিত্রাংকন, স্পেলিং বি, আইডিয়া হান্ট ও সীমিত চলচ্চিত্রসহ ইত্যাদি প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে স্কুল ও মাদ্রাসার তিন সহস্রারাধিক শিক্ষার্থী। এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, শিশু-কিশোররা যাই দেখে তাই অনুসরণ অনুকরণ করে। তাই তাদের মনোজাগতিক উৎকর্ষতা সাধনে ও নৈতিক চেতনা জাগ্রত করতে জ্ঞানবান্ধব বুদ্ধিবৃত্তিক নানা পদক্ষেপ নেয়া দরকার। গাউসুল আযম মাইজভাণ্ডারী (ক.) সহ মাইজভাণ্ডারী মহাত্মাদের জীবন কর্ম দর্শন শিশু-কিশোরদের মাঝে তুলে ধরতে পারলে তারা আলোকিত ও সমৃদ্ধ হবে। প্রফেসর এম মহি উদ্দিন চৌধুরী বলেন, আজকের শিশু-কিশোররাই আগামী দিনে দেশের হাল ধরবে। তাই তাদেরকে জ্ঞানে গুণে আদর্শে মহৎ মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। মাইজভাণ্ডারী একাডেমির উদ্যোগে শিশু-কিশোর সমাবেশ ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা তাদের নৈতিক ও আদর্শিকভাবে উজ্জীবিত করবে বলে তিনি উল্লেখ করেন। তিনি মাইজভাণ্ডারী একাডেমি ও এসজেডএইচএম ট্রাস্টের জ্ঞানবান্ধব ও নানা সেবামূলক কর্মকান্ডের ভূয়সী প্রশংসা করেন। সভাপতির বক্তব্যে অধ্যাপক এ ওয়াই এমডি জাফর বলেন, বর্তমান প্রজন্ম আজ পথহারা। তারা নানাভাবে অবক্ষয়ে ধুঁকছে। তাদের সামনে কৃতী গুণী আদর্শ মানুষদের তুলে ধরতে পারলে তারা জ্ঞান-আদর্শের শক্তিতে এগুতে পারবে। শিশু-কিশোরদের কেবল পড়াশোনায় কৃতিত্ব অর্জনের দিকে দেখলে হবে না। তারা সৎ যোগ্য আদর্শ মানুষ হিসেবে গড়ে উঠছে কিনা অভিভাবকদেরকে সেদিকেও লক্ষ্য রাখতে হবে। অনুষ্ঠানে অতিথি ও আলোচক ছিলেন, চবি অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ জসিম উদ্দিন, অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ হেলাল উদ্দিন, অধ্যাপক জহুর উল আলম, মুহাম্মদ তানসির। নানা প্রতিযোগিতায় বিচারকদের মধ্যে ছিলেন, জয়ন্তী লালা, ইকবাল হায়দার চৌধুরী, দিপেন চৌধুরী, মানু মজুমদার, কল্যাণী ঘোষ, আবদুর রহিম, মাওলানা মোহাম্মদ মুজিবুল হক, মোহাম্মদ শাহজাহান খান, মোহাম্মদ হোসেন খান, ইলমা বখ্তেয়ার, আইরিন সাহা, দীপ্তি দাশ, অরিন্দম মুখার্জি রিংকু, সুনিল ধর, প্রফেসর অরুপ বড়ুয়া, চবি অধ্যাপক এস এম মুর্শিদুল আলম, অধ্যাপক ফয়জুল আবেদিন, মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন খান, শুভ্রা বিশ্বাস, আয়েশা হক শিমু, রেখা নাজনিন, কংকন দাশ, অধ্যাপক মোহাম্মদ জিবরান আলম, অধ্যাপক মোহাম্মদ নঈম উদ্দিন, মোহাম্মদ ফাহিম হোসেন প্রমুখ। আগামী ১৬ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার নাসিরাবাদ সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে মাইজভাণ্ডারী একাডেমির আয়োজনে শিশু-কিশোর সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। ওই দিন প্রতিযোগিতায় বিজয়ী ও অংশগ্রহণকারীদের মাঝে পুরস্কার ও উপহার সামগ্রী বিতরণ করা হবে।



ফেসবুকে আমরা

ফেসবুকে আমরা