শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ০২:৪৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
মাইজভান্ডার শরীফ শাহী ময়দানে পবিত্র ঈদ উল ফিতর এর জামাতে অংশ নেন হযরত সৈয়দ হাসান মাইজভান্ডারী (মাঃ) মাইজভান্ডারি সূর্যগিরি আশ্রম শাখার উদ্যোগে ঈদ বস্ত্র-সামগ্রী প্রদান মাইজভান্ডার শরীফ গাউসিয়া হক মনজিলে বাবা ভাণ্ডারী-র চাহরাম শরীফ সম্পন্নঃ খুলশী যুব উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে এতিম শিশু ও পথচারী রোজাদারদের মাঝে ইফতার বিতরণ লাইলাতুল কদর মাহফিলে গাউসুলআজম মাইজভাণ্ডারীর রওজা-এ-পাক জিয়ারতরত শাহসুফি সৈয়দ সহিদুল হক মাইজভাণ্ডারী কাঞ্চনা পল্লী কল্যাণ সমিতির দ্বি-বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত। নাজিরহাটে হক কমিটির ঈদ উপহার বিতরণ বাবা ভান্ডারীর ওরশ শরীফের আখেরি মোনাজাতে সৈয়দ মোহাম্মদ হাসান মাইজভাণ্ডারী গাউছিয়া হক মনজিলে বাবা ভান্ডারীর ৮৮তম ওরশ উদযাপন, ফটিকছড়ি মাধ্যমিক সহকারী শিক্ষক কল্যাণ পরিষদের মত বিনিময় সভা ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত,
নোটিশ :

পাইন্দংয়ে হযরত মাওলানা শাহসুফি সৈয়দ রহমত উল্লাহ শাহ্ (রহ)র, সংক্ষিপ্ত পরিচিতি।

ঐতিহ্যবাহী চট্টগ্রাম ফটিকছড়ি উপজেলার শ্বেতকুয়া পাইন্দং ইউনিয়নস্থ বিশ্ববিখ্যাত আলেমেদ্বীন গাউছুল আজম মাইজভান্ডারীর নানাজান শায়খুল আরব, ওয়াল আজম, হযরতুলহাজ্ব আল্লামা শাহসুফি সৈয়দ রহমত উল্লাহ শাহ (রাহঃ) এর সংক্ষিপ্ত পরিচিতি।

হযরত সৈয়দ রহমত উল্লাহ শাহ (রাহঃ) পিতা হযরত মাওলানা শাহসুফি সৈয়দ ছানা উল্লাহ শাহ ( প্রকাশ ছানা উল্লাহ সুবেদার রাহঃ) এর ঔরসে ফটিকছড়ি উপজেলার ইমাম নগর গ্রামে জন্ম গ্রহন করেন।

প্রাথমিক শিক্ষা আপন পিতার নিকট আরম্ভ করে পরবর্তী তাঁর আপন (জেঠা) বড় বাবা চট্টগ্রাম হাটহাজারী উপজেলার মির্জাপুর গ্রামের অভিবাবক দরবেশ কুতুবুল আলম, ইমামুল আউলিয়া, হযরতুল আল্লামা শাহসুফি সৈয়দ জয়নুল্লাহ মোমেন শাহ (ক.) এর নিকট কুরআন হাদীসের জ্ঞান অর্জন করেন।

তৎপরবর্তী তিনি তুরস্কের তৎকালীন রাজধানী কন্স্টান্টিনোপল এর কুস্তনতূনিয়ার মাদরাসা হতে উচ্চ শিক্ষা লাভ করেন এবং পরবর্তী উক্ত মাদরাসায় কয়েক বৎসর শিক্ষকতা করেন। তৎপরবর্তীতে তাঁকে তৎকালীন তুরস্কের সরকার মক্কায়ে মুয়াজ্জমা বায়তুল্লাহ শরিফের ইমাম নিযোক্ত করেন। সেখানে তিনি কয়েক বৎসর দক্ষতার সহিত উক্ত দায়িত্ব পালন করেন। অতঃপর রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু তা’য়ালা আলাইহি ওয়াসাল্লাম এঁর প্রিয় শহর মদীনায়ে তৈয়বায় গমণ করে তৎকালীন বিশ্ব বিখ্যাত শায়খদের কাছ হতে ধর্মীয় বিভিন্ন বিষয়ে জ্ঞান অর্জন করে নিজ মাত্রিভুমী ফিরে আসেন। দেশে আসার পর তাঁর প্রিয় বড় বাবা হযরত সৈয়দ জয়নুল্লাহ মোমেন শাহ (ক.) মির্জাপুরী এর নিকট ত্বরিকতের বায়াত গ্রহন করে খেলাফত প্রাপ্ত হন এবং পরবর্তী তাঁরই প্রিয় কন্যা শাহজাদী আলেমা হযরত সৈয়দা আফাজুন্নিছা (রাহঃ) এর সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়ে পারিবারিক জীবনের সুচনা করেন। তাঁদের ঔরসে দুইজন কন্যা সন্তান জন্ম গ্রহণ করেন। প্রথম কন্যা আলেমা হযরত সৈয়দা লুৎফুন্নিছা (প্রকাশ ফাতেমা বিবি রাহঃ) স্বামী হাটহাজারী উপজেলাধীন মির্জাপুর সৈয়দ পাড়া নিবাসী হযরত মাওলানা সৈয়দ তামাছ উদ্দিন (রাহঃ) তাঁর ঔরসে তিনজন পুত্র সন্তান জন্ম গ্রহন করেন, ১/ হযরত মাওলানা সৈয়দ আহমদ উল্লাহ ( মুন্সেফ রাহঃ) ২/ হযরত মাওলানা সৈয়দ মুহাম্মদ উল্লাহ (রাহঃ) ৩/ সফিনাতুল ইলম মুফতিয়ে আজম হযরতুল আল্লামা শাহসুফি সৈয়দ মছিহুল্লাহ শাহ মির্জাপুরী (ক.)।

হযরত সৈয়দ রহমত উল্লাহ শাহ (রাহঃ) এর দ্বিতিয় কন্যা আলেমা হযরত সৈয়দা খায়রুন নিছা (রাহঃ) কে ফটিকছড়ি উপজেলাধীন মাইজভান্ডার গ্রামের বিশিষ্ট আলেমেদ্বীন হযরতুল আল্লামা সৈয়দ মতিউল্লাহ শাহ (রাহঃ) এর নিকট বিবাহ দেন। তাঁদের ঔরসে তিন কন্যা তিনপুত্র সন্তান জন্ম গ্রহন করেন। যথাক্রমে ১/ গাউছুল আজম হযরত মাওলানা শাহসুফি সৈয়দ আহমদ উল্লাহ শাহ (ক.) মাইজভাণ্ডারী,, ২/ হযরত মাওলানা শাহসুফি সৈয়দ আবদুল হামিদ শাহ (রাহঃ) মাইজভান্ডারী,,৩/ হযরত মাওলানা শাহসুফি আবদুল করিম শাহ (রাহঃ) আল হাসানি ওয়াল হোসাঈনী মাইজভাণ্ডারী।

হযরত সৈয়দ রহমত উল্লাহ শাহ (রাহঃ) এর আদেশে তাঁর একছাত্র আঠারো শতকের স্বনামধন্য কবি শেখ মুত্তালিব কেফায়েতুল মুসাল্লীন নামক বিখ্যাত এক দ্বীনি কিতাব রচনা করেছিলেন।
সুত্রঃ- কেফায়েতুল মুসাল্লীন।

পবিত্র মাজার শরীফ জিয়ারত করছেন, আওলাদে রাসুল(দ)আওলাদে গাউসুল আজম মাইজভান্ডারী সৈয়দ গোলাম মোরশেদ আল হাসানী ওয়াল হোছাইনী আল মাইজভান্ডারী(ম জি আ),
গাউছিয়া সোবহান মন্জিল, মাইজভান্ডার দরবার শরীফ ফটিকছড়ি চট্টগ্রাম,



ফেসবুকে আমরা

ফেসবুকে আমরা