শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:৪২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
মাইজভান্ডার শরীফ শাহী ময়দানে পবিত্র ঈদ উল ফিতর এর জামাতে অংশ নেন হযরত সৈয়দ হাসান মাইজভান্ডারী (মাঃ) মাইজভান্ডারি সূর্যগিরি আশ্রম শাখার উদ্যোগে ঈদ বস্ত্র-সামগ্রী প্রদান মাইজভান্ডার শরীফ গাউসিয়া হক মনজিলে বাবা ভাণ্ডারী-র চাহরাম শরীফ সম্পন্নঃ খুলশী যুব উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে এতিম শিশু ও পথচারী রোজাদারদের মাঝে ইফতার বিতরণ লাইলাতুল কদর মাহফিলে গাউসুলআজম মাইজভাণ্ডারীর রওজা-এ-পাক জিয়ারতরত শাহসুফি সৈয়দ সহিদুল হক মাইজভাণ্ডারী কাঞ্চনা পল্লী কল্যাণ সমিতির দ্বি-বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত। নাজিরহাটে হক কমিটির ঈদ উপহার বিতরণ বাবা ভান্ডারীর ওরশ শরীফের আখেরি মোনাজাতে সৈয়দ মোহাম্মদ হাসান মাইজভাণ্ডারী গাউছিয়া হক মনজিলে বাবা ভান্ডারীর ৮৮তম ওরশ উদযাপন, ফটিকছড়ি মাধ্যমিক সহকারী শিক্ষক কল্যাণ পরিষদের মত বিনিময় সভা ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত,
নোটিশ :

চল্লিশ হাজার এতিম ও হেফজখানার শিক্ষার্থীদের মাঝে একবেলা খাবার বিতরণের মধ্য দিয়ে সৈয়দ জিয়াউল হক মাইজভাণ্ডারীর ৯৫তম ১০ পৌষ খোশরোজ পালিত হচ্ছে

২৫ ডিসেম্বর সোমবার মাইজভাণ্ডার অধ্যাত্ম শরাফতের অন্যতম প্রাণপুরুষ বিশ্বঅলি শাহানশাহ্ হযরত সৈয়দ জিয়াউল হক মাইজভাণ্ডারীর (কঃ) ৯৫তম মহান ১০ই পৌষ খোশরোজ, মাইজভাণ্ডার শরিফ গাউসিয়া হক মন্জিলে ভিন্ন আবহের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। মাইজভাণ্ডার শরিফ গাউসিয়া হক মন্জিলের উদ্যোগে খোশরোজ শরিফের বিভিন্ন অনুষ্ঠানমালার মধ্যে রয়েছে বা’দে ফজর রওজা শরিফে গিলাফ চড়ানো, দিনব্যাপী খত্মে কুরআন, জিকির-আজকার, মিলাদ মাহ্ফিল অনুষ্ঠান। এ উপলক্ষে বিশেষ কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে, চট্টগ্রাম জেলার ১৪টি উপজেলাধীন ৭ শত এতিমখানা ও হেফযখানার ৪০ হাজার নিবাসীদের মাঝে একবেলা খাবার বিতরণ।
মাইজভাণ্ডারী গাউসিয়া হক কমিটি বাংলাদেশ-এর দেশ-বিদেশে অবস্থিত ৭ শতাধিক শাখা কমিটির সদস্যরা নিজ নিজ এলাকায় এবং খানকায় মিলাদ মাহফিল আয়োজনের মধ্য দিয়ে শাহানশাহ্ হযরত সৈয়দ জিয়াউল হক মাইজভাণ্ডারী (ক.)-এর ৯৫তম ১০ই পৌষ খোশরোজ শরিফ পালন করছেন। এদিন গাউসিয়া হক মন্জিলে আশেক-ভক্ত-জায়েরীনের সমাবেশের সুযোগ থাকবে না।
উল্লেখ্য, শাহানশাহ্ হযরত সৈয়দ জিয়াউল হক মাইজভাণ্ডারী (কঃ) হচ্ছেন বিশ^সমাদৃত মাইজভাণ্ডারীয়া ত্বরিকার প্রবর্তক গাউসুল আযম হযরত মাওলানা শাহ্ সুফি সৈয়দ আহমদ উল্লাহ্ মাইজভাণ্ডারী কেবলা কাবার প্র-পৌত্র ও অছি-এ-গাউসুল আ’যম হযরত মাওলানা শাহ্ সুফি সৈয়দ দেলাওর হোসাইন মাইজভাণ্ডারীর (কঃ) জ্যেষ্ঠ পুত্র। বিভিন্ন সাধনার পথ অতিক্রম করার পর ১৩৭৩ বাংলার ৯ই মাঘ উরস্ শরিফের প্রথম দিনে গাউসুল আযম হযরত মাওলানা শাহ্ সুফি সৈয়দ আহমদ উল্লাহ্ মাইজভাণ্ডারীর (কঃ) স্বপ্নাদেশক্রমে তাঁর পিতা পীরে কামেল অছি-এ-গাউসুল আযম খাদেমুল ফোক্বারা হযরত মাওলানা শাহ্ সুফি সৈয়দ দেলাওর হোসাইন মাইজভাণ্ডারী (কঃ) শাহানশাহ্ হযরত সৈয়দ জিয়াউল হক মাইজভাণ্ডারী (কঃ) কে আনুষ্ঠানিকভাবে খেলাফত দানের মাধ্যমে শ্রেষ্ঠ অলির আসনে প্রতিষ্ঠিত করেন। হযরত গাউসুল আযম শাহ্ সুফি সৈয়দ আহমদ উল্লাহ্ মাইজভাণ্ডারী (কঃ), গাউসুল বিরাসত হযরত মাওলানা শাহ্ সুফি সৈয়দ গোলামুর রহমান মাইজভাণ্ডারী (কঃ) এবং অছি-এ-গাউসুল আযম হযরত মাওলানা শাহ্ সুফি সৈয়দ দেলাওর হোসাইন মাইজভাণ্ডারীর (কঃ) অধ্যাত্ম খনির আমানত হচ্ছেন শাহানশাহ্ হযরত সৈয়দ জিয়াউল হক মাইজভাণ্ডারী (কঃ)। হযরত গাউসুল আযম মাইজভাণ্ডারী (কঃ) স্বপ্নযোগে শাহানশাহ্ হযরত সৈয়দ জিয়াউল হক মাইজভাণ্ডারীর (কঃ) শির মোবারকে তাজ পরানোর মাধ্যমে, হযরত বাবা ভাণ্ডারী (কঃ) স্বপ্নযোগে নিজ আধ্যাত্মিক পাঠশালায় ভর্তি করে এবং মুর্শিদে কামেল হযরত মাওলানা শাহ্ সুফি সৈয়দ দেলাওর হোসাইন মাইজভাণ্ডারীর (কঃ) জালালী দৃষ্টির মাধ্যমে শাহানশাহ্ হযরত সৈয়দ জিয়াউল হক মাইজভাণ্ডারী (কঃ) কে মাইজভাণ্ডারী আধ্যাত্মিক শরাফতের জিম্মাদারি অর্পণ করেন এবং ফয়েজ-বরকত দান করেন।
উল্লেখ্য যে, ১০ই পৌষ খোশরোজ শরিফের দিন গাউসিয়া হক মনজিলের ঐতিহ্য অনুসারে সকল প্রকার হাদিয়া গ্রহণ বন্ধ থাকে। এবার ভিন্ন আবহে চট্টগ্রাম জেলার ১৪টি উপজেলাধীন ৭ শত এতিমখানা ও হেফযখানার ৪০ হাজার নিবাসীদের মাঝে একবেলা খাবার বিতরণের মধ্য দিয়ে খোশরোজ শরিফ উদযাপিত হবে।



ফেসবুকে আমরা

ফেসবুকে আমরা