সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ০৯:০০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
মাইজভান্ডারী একাডেমির আজীবন সদস্য মোঃ ওমর ফারুক এর শ্রদ্ধেয় পিতা ইন্তেকাল করেছেন, হজরত খাজা ওচমান হারুনী ( রাঃ) র ওফাত বার্ষিকী উদযাপিত উসুলে সাবআ সপ্ত পদ্ধতি জগতের সামনে তুলে ধরার যোগ্যতা, সক্ষমতা ও তৌফিক কামনা করেন হযরত সৈয়দ মোহাম্মদ হাসান মাইজভান্ডারী মাইজভান্ডার শরীফ শাহী ময়দানে পবিত্র ঈদ উল ফিতর এর জামাতে অংশ নেন হযরত সৈয়দ হাসান মাইজভান্ডারী (মাঃ) মাইজভান্ডারি সূর্যগিরি আশ্রম শাখার উদ্যোগে ঈদ বস্ত্র-সামগ্রী প্রদান মাইজভান্ডার শরীফ গাউসিয়া হক মনজিলে বাবা ভাণ্ডারী-র চাহরাম শরীফ সম্পন্নঃ খুলশী যুব উন্নয়ন সংস্থার উদ্যোগে এতিম শিশু ও পথচারী রোজাদারদের মাঝে ইফতার বিতরণ লাইলাতুল কদর মাহফিলে গাউসুলআজম মাইজভাণ্ডারীর রওজা-এ-পাক জিয়ারতরত শাহসুফি সৈয়দ সহিদুল হক মাইজভাণ্ডারী কাঞ্চনা পল্লী কল্যাণ সমিতির দ্বি-বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত। নাজিরহাটে হক কমিটির ঈদ উপহার বিতরণ
নোটিশ :

এস জেড এইচ এম ট্রাস্টের ম্যানেজিং ট্রাস্টি আলহাজ্ব সৈয়দ মুহাম্মদ হাসান মাইজভান্ডারীর সাথে বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় সহকারী হাই কমিশনার এইচ ই ডা.রাজিব রঞ্জন এর সৌজন্য সাক্ষাৎ,,

চ্যানেল মানবাধিকার 24 প্রতিবেদন:-
শাহানশাহ্ হযরত সৈয়দ জিয়াউল হক মাইজভাণ্ডারী (কঃ) ট্রাস্ট’কার্যালয় পরিদর্শন ও ট্রাস্টের মাননীয় ম্যানেজিং ট্রাস্টি হযরত সৈয়দ মোহাম্মদ হাসান মাইজভাণ্ডারীর সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় সহকারী হাই কমিশনার এইচ ই ডা. রাজীব রঞ্জন।
পরবর্তীতে ট্রাস্টের মাননীয় ম্যানেজিং ট্রাস্টি সৈয়দ মোহাম্মদ হাসান মাইজভাণ্ডারী মহোদয়ের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বিভিন্ন খাতে সহায়তা প্রাপ্ত ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের হাতে ট্রাস্টের পক্ষ হতে চেক তুলে দেন। সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট সমাজবিজ্ঞানী ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য প্রফেসর ড.ইফতেখার উদ্দীন চৌধুরী। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি এইচ ই ডা. রাজীব রঞ্জন বলেন, ভারত ও বাংলাদেশের দুই দেশের মানুষের মাঝে আত্মার সম্পর্ক। শুধু তাই নয় সংস্কৃতি, আচার আচরণ, খাবার, খেলাধুলা এমনকি আধ্যত্মিতকায়ও গভীর মিল রয়েছে। ভারতের মাটিতে শাহসূফী খাজা মঈনুদ্দিন চিশতীর রওজা। অনেক বাংলাদেশী প্রতিবছর মাজার শরীফ জিয়ারতে যান। দুই দেশের মানুষের মাঝে যেই আত্মার সম্পর্ক তা কেউ ছিন্ন করতে পারবে না।
মাইজভাণ্ডার দরবার শরীফও অসাম্প্রদায়িক চেতনা বিশ্বাস করে এবং লালন করে। শাহানশাহ হযরত সৈয়দ জিয়াউল হক মাইজভাণ্ডারী ট্রাস্টের কর্মকাণ্ড মানবতার জন্য এবং অসহায়দরে জন্য। এর মাধ্যমে প্রান্তিক পর্যায়ের মানুষ উপকৃত হচ্ছে। এই ধরণের কাজ মানুষকে অনুপ্রাণিত করবে ,যা সমাজের জন্য দৃষ্টান্ত। শিক্ষার্থীরা শিক্ষা সহায়তা পাচ্ছে, চিকিৎসার জন্য অসহায়রা অর্থ পাচ্ছে, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নে অর্থ সহায়তা দিচ্ছে ট্রাস্ট। সৈয়দ জিয়াউল হক মাইজভাণ্ডারী ট্রাস্টের কাজ প্রশংসনীয় এবং অনুকরণীয়। শাহানশাহ হযরত সৈয়দ জিয়াউল হক মাইজভাণ্ডারী ট্রাস্টের এ ধরণের কাজ অব্যাহত থাকবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি। এ সময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের সদস্য এইচ এম আলী আবরাহা দুলাল, ট্রাস্টের সচিব অধ্যাপক এ ওয়াই এমডি জাফর, ট্রাস্টের মুখ্য সমন্বয়ক অধ্যাপক জহুর উল আলম।
অনুদান গ্রহণকারীর মধ্যে ছিল ‘সবার জন্য শিক্ষা প্রকল্প ২০২২’-এর দ্বিতীয় পর্যায়ের আর্থিক সহায়তাপ্রাপ্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহ, ট্রাস্ট নিয়ন্ত্রণাধীন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহে ষান্মাসিক শিক্ষক সম্মানী, আলেম সহায়তা, মসজিদ নির্মাণে অনুদান, চিকিৎসা সহায়তা, বিদেশ গমনে সহায়তা এবং গৃহনির্মাণ সহায়তা।



ফেসবুকে আমরা

ফেসবুকে আমরা